ফারজানা তন্বী »

বিভিন্ন অনুষ্ঠান উদযাপনের মেনুতে কোল্ড ড্রিংক তো নিশ্চয়ই থাকবে। আর সব কোলাহল থেমে যাবার পর অনেকখানি রয়েও যাবে। ফেলে দিতে মায়া লাগে আবার খেতেও ইচ্ছা করে না। এক্ষেত্রে যদি আপনার জানা থাকে কোল্ড ড্রিংকের বিভিন্ন ব্যবহার, তাহলে আর চিন্তা করতে হয় না। জেনে নিন কী কী ভাবে ব্যবহার কার যায় সফট ড্রিংক:

১.  একটা ছোট বাটিতে সফট ড্রিঙ্ক ঢেলে বাগানে বা ফুলগাছের নিচে রাখুন। গন্ধে আকৃষ্ট হবে পোকা-মাকড়। সফট ড্রিঙ্কের অ্যাসিডিটি পেস্ট কন্ট্রোল করতে সাহায্য করবে।

২. ডিপ ফ্রিজে রাখা খাবার জমে গেলে বরফ গলাতে কাজে আসবে সফট ড্রিংক। জমাট বাঁধা খাবারের ওপর সফট ড্রিংক ঢালতে থাকলে দ্রুত বরফ গলে যাবে।

All Media Link

৩. থালা-বাটির পোড়া দাগ, কেটলির চায়ের দাগ তুলতে সাহায্য করে সফট ড্রিংক। পোড়া দাগে অল্প সফট ড্রিংক ঢেলে হালকা গরম করুন। সহজে পোড়া দাগ উঠে যাবে।

৪. কাপড়ে লেগে থাকা চায়ের দাগ, খাবারের দাগ বা রক্তের দাগ তুলতে কয়েকবার সফট ড্রিংক দিয়ে ঘষে ধুয়ে নিন। ধীরে ধীরে দাগ হালকা হয়ে উঠে যাবে।

৫. বোতলে সফট ড্রিংক ভরে নোংরা টাইলে স্প্রে করলে কিছুক্ষণ রেখে দিন। ওয়াইপ করে তুলে ফেলুন।

৬. চুইং গাম ছাড়াতে সফট ড্রিংক কিছুক্ষণ চুলে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।

৭. মার্কারের দাগ একবার কোথাও লাগলে সহজে উঠতে চায় না। সফট ড্রিংক লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এবার সাবান পানিতে ধুয়ে ফেলুন। দেখুন দাগ উঠে গেছে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ইসরাত পুনম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে স্নাতকোত্তর করেছি। পড়াশোনার পাশাপাশি লেখালিখি করছি প্রায় চার বছর ধরে। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি লাইফস্টাইল সম্পাদক হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। খুব ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »