বার্তাবাংলা ডেস্ক »

hortal 03বার্তবাংলা রিপোর্ট :: সড়ক অবরোধ, যানবাহন ভাঙচুর ও পুলিশের সঙ্গে পিকেটারদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার মধ্য দিয়ে সারাদেশে ঢিলেঢালাভাবে মঙ্গলবার হরতাল পালন করেছে বিএনপি। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে এ পর্যন্ত ৪৮ জনকে আটক করা হয়েছে। বিচ্ছিন্ন সংঘর্ষে ১১৮ জন আহত হয়েছেন।

ভোলা:

সকালে ভোলায় হরতাল সমর্থকরা ৮টি যানবাহনে ভাঙচুর চালিয়েছে। দুরপাল্লার রুটের বাস চলাচল বন্ধ ছিল। শহরের দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ ছিল।

All Media Link

ভোরে ভোলা-বরিশাল-লক্ষ্মীপুর ও ভোলা-চরফ্যাশন মহাসড়কে টায়ার জ্বালিয়ে ও গাছগুড়ি ফেলে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পিকেটাররা। এ সময় ৪টি অটো রিকসা ভাঙচুর করে তারা। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের ধাওয়া দিলে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

এদিকে, শহরের চরনোয়াবাদ এলাকায় একইভাবে টায়ার জ্বালিয়ে ৪টি অটোরিকসা ভাঙচুর করে। গত সোমবার রাতে পুলিশ বিভিন্ন এলাকা থেকে ৪জনকে আটক করেছে।

নারায়ণগঞ্জ:

হরতালের সমর্থনে পিকেটাররা সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ সড়কের সৈয়দপুর এলাকায় রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ও বিদ্যুতের খুটি ফেলে সড়ক অবরোধ করে। পরে পুলিশ গিয়ে ধাওয়া দিলে হরতালকারীরা পালিয়ে যায়। নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ভুইঘর এলাকায় হরতালের সমর্থনে যুবদলের কর্মীরা একটি মিছিল করে রাস্তা অবরোধের চেষ্টা করে। পরে পুলিশের ধাওয়ায় দ্রুত স্থান ত্যাগ করে তারা।

ঝিনাইদহ:

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে হরতালের সমর্থনে ঝিনাইদহে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শহরের কেপি বসু সড়কস্থ জেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে জেলা বিএনপি। এ মিছিলে নেতৃত্ব দেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য মশিউর রহমান।

মিছিলটি পায়রা চত্বর হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেকসহ নেতারা বক্তব্য রাখেন। এ সময় বক্তারা, অবিলম্বে বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, মামলা, নির্যাতন বন্ধসহ তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতির দাবি জানায়।

খুলনা:

খুলনায় হরতাল ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে। এ পর্যন্ত কোথাও কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। তবে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নগরী রেলওয়ে মার্কেটে হরতালের সমর্থনে মিছিল বের হয়। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ইকবাল নগর সড়ককে হরতাল সমর্থনে পিকেটিং করার চেষ্ঠা করলে পুলিশ বাধা দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় মশিউর রহমান যাদু ও শামীম নামের দুই হরতাল সমর্থনকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

প্রধান সড়কে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও অটো, বেবি টেক্সি ও রিকসা চলাচল করছে। তবে ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও দূরপাল্লার কোনো বাস চলাচল করেনি।

এদিকে, হরতালকে প্রতিহত করতে আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নেয়। এছাড়াও নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে হরতাল বিরোধী মিছিল বের করা হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ:

হরতালের সমর্থনে সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ মহাসড়কের শিবগঞ্জের ইসরাইল মোড়, কানসাট, ধোবড়াসহ বিভিন্নস্থানে সড়ক কেটে ও গাছের গুড়ি ফেলে ব্যারিকেড দিয়ে অবরোধ করে রাখে হরতাল সমর্থনকারীরা। এছাড়া এসব পয়েন্টে টায়ার জ্বালিয়েছে পিকেটাররা পিকেটিং করে সকালে শিবগঞ্জে বিএনপির নেতা-কর্মীরা লাঠি মিছিল করেছে। হরতালের দুরপাল্লাসহ অভ্যন্তরীণ রুটে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। অধিকাংশ দোকানপাট ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানও বন্ধ ছিল। এখন পর্যন্ত জেলার কোথাও বড় ধরনের কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। শহরের গুরুত্বপূর্ণস্থানে আইনশৃ্ঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দিয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গত বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে জেলায় ১৪৪ ধারা বলবৎ রয়েছে।

সিরাজগঞ্জ:

বিক্ষিপ্ত ঘটনার মধ্য দিয়ে সিরাজগঞ্জে হরতাল পালন করা হয়। সকালে হরতালকারীরা বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের সীমান্ত বাজার নামক স্থানে টায়ার জ্বালিয়ে ও গাছের গুড়ি ফেলে মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। ২ শতাধিক নেতাকর্মী সকাল থেকে মিছিল করছে। ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গগামী ২০ জেলার যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল।

সকাল থেকে সিরাজগঞ্জের কাজীপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের ফকিরতলা, সিরাজগঞ্জ বগুড়া সড়কের চণ্ডিদাসগাতী এলাকায় হরতালকারীরা গাছ ফেলে অবরোধ করে রাখে। থেমে থেমে নেতা-কর্মীরা মিছিল করে।

বরিশাল:

সকালে ৯টার দিকে বরিশাল হরতাল সমর্থনে পলিটেকনিক কলেজের সামনে থেকে ছাত্রদল মিছিল করার চেষ্টা করলে ছাত্রলীগের হামলায় তা পণ্ড হয়ে যায়। এ সময় ইট-পাটকেলের আঘাতে ছাত্রদলের ১ জন আহত হয়েছেন।

এর আগে জেলা বিএনপির উদ্যোগে মিছিল করার চেষ্টা করা হলেও পুলিশি বাধার মুখে এগুতে পারেনি।

বরিশাল সদর উপজেলার সোমরাজী এলাকায় গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগে পুলিশ ২ জনকে আটক করেছে। এর আগে মিছিল থেকে পুলিশ ১ জনকে আটক করেছে।

হরতালে স্কুল কলেজ খোলা রয়েছে। দূরপাল্লার ও স্থানীয় রুটের গাড়ি চলাচল না করলেও নৌ চলাচল করছে।

এছাড়া রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়া, পাবনাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ঢিলেঢালাভাবে হরতাল পালন করা হয়।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »