বার্তাবাংলা ডেস্ক »

rajdhaniবার্তবাংলা রিপোর্ট :: মঙ্গলবার সকাল থেকেই রাজধানীতে রিকশা, অটোরিক্সা ও অভ্যন্তরীণ রুটের বাস চলতে দেখা যায়।

রাজধানীর বিভিন্ন রুটে চলছে বিআরটিসির বাস। এছাড়া মতিঝিল- মিরপুর রুটে ইউনাইটেড, বিকল্প, বিহঙ্গসহ বিভিন্ন পরিবহন সংস্থার বাস চলতে দেখা যায়।

সায়েদাবাদ-গাজীপুর রুটে চলছে বলাকা পরিবহনের বাস। গুলিস্তান-আব্দুল্লাহপুর রুটে ৩ নম্বর, গাবতলী-সায়েদাবাদ রুটের ৮ নম্বর বাসও চলতে দেখা গেছে।

All Media Link

সকাল থেকেই প্রাইভেটকার নিয়ে রাস্তায় বেরিয়েছেন অনেকে।

এদিকে, হরতালে নাশকতা এড়াতে রাজধানীতে নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট পুলিশ মোতায়েনের পাশপাশি বিভিন্ন এলাকায় সড়কে পুলিশের অস্থায়ী চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।

চেকপোস্ট রয়েছে মহাখালী বাস টার্মিনালের কাছেও। সেখানে বিভিন্ন যানবাহন ও ব্যক্তিকে তল্লাশি করতে দেখা যায়।

যুদ্ধাপরাধের দায়ে জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায় আসার পর গত বৃহস্পতিবার সারা দেশে ব্যাপক তাণ্ডব চালায় জামায়াত শিবির কর্মীরা। রায় প্রত্যাখ্যান করে রবি ও সোমবার সারা দেশে ৪৮ ঘণ্টা হরতাল করে দলটি।

আর বৃহস্পতিবার জামায়াতের সহিংসতার সময় গুলিতে হতাহতের ঘটনাকে ‘সরকারে গণহত্যা ’ আখ্যায়িত করে মঙ্গলবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা এই হরতাল করছে জামায়াতের জোটসঙ্গী বিএনপি। জামায়াত এবং ইসলামী ঐক্যজোটও এই হরতালে সমর্থন জানিয়েছে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »