বার্তাবাংলা ডেস্ক »

40+Sayedee+verdict+Shahbagh+280213বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায় হওয়ার পর রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আনন্দ মিছিল ও শোভাযাত্রা বের হয়েছে। রায়কে স্বাগত জানিয়ে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে এসব মিছিল থেকে।

রায় ঘোষণার পরপর মিরপুর ১০নং গোলচত্বরে আনন্দ মিছিল বের করে আওয়ামী যুবলীগ উত্তরের কর্মীরা। এ সময় তাদের সঙ্গে যোগ দেয় সাধারণ মানুষ।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন মিছিল নিয়ে মিরপুরের গণজাগরণ মঞ্চে গিয়ে সংহতি প্রকাশ করেন। তারা ‘এই মুর্হূতে স্লোগান এলো, রাজাকারের ফাঁসি হলো’সহ বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে থাকেন। মিছিলটি মিরপুর গণজাগরণ মঞ্চের গিয়ে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে শহীদদের প্রতি সম্মান জানায়।

All Media Link

এদিকে, সাঈদীর ফাঁসি হওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল ও ট্রাইব্যুনালের আশেপাশে অপেক্ষমাণ মুক্তিযুদ্ধ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সদস্যরা আনন্দ মিছিল করেছেন।

টানা ২৪ দিনের মতো চলতে থাকা শাহবাগ গনজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভকারীদের মধ্যে আনন্দ ও উল্লাসে মেতে ওঠে। তারা স্লোগান দিতে থাকে, “সাঈদীর ফাঁসির বাংলাদেশে, কবর হবে পাকিস্তানে’। এসময় মিষ্টিমুখ করতেও দেখা তাদের।

এসময় তারা স্লোগান দিতে থাকেন, “এইমাত্র খবর এলো, সাঈদীর ফাঁসি হলো।”

ফাঁসির রায় হওয়ার পর পর আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা কাদের দেওয়ানের নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল শুরু হয়। এসময় সর্বস্তরের জনগণের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

সাভারে ও ধামরাইতেও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্যোগে ফাঁসির রায়কে স্বাগত জানিয়ে মিষ্টি বিতরণ ও আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রায় ঘোষণার পরপরই রাজশাহীর বিভিন্ন স্থান থেকে আনন্দ মিছিল ও মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা শুরু হয়েছে। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন রাস্তায় বেরিয়ে এসে উল্লাস প্রকাশ করছেন। এসময় আলুপট্টি প্রজন্ম চত্বরে উপস্থিত তরুণরা জড়ো হতে থাকে ও ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে ঢাক-ঢোল পিটিয়ে আনন্দ প্রকাশ করছে।

এছাড়া মহানগরীর লক্ষ্মীপুর, কোর্ট এলাকাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে পৃথক পৃথক আনন্দ মিছিল বের হচ্ছে।

এছাড়া খুলনা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন বিভাগীয় ও জেলা শহরে আনন্দ মিছিল করেছে সাধারণ মানুষ।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »