বার্তাবাংলা ডেস্ক »

পুলিশবার্তাবাংলা ডেস্ক ::শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরে পুলিশের ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ দলের এক কনস্টেবলকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মতিঝিলে লাশ ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা।

নিহত বাদল মিয়া (২৬) রাজারবাগ পুলিশ লাইনে কর্মরত ছিলেন। বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে শুক্রবার রাত ৮টা পযর্ন্ত তাকে শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরে আন্দোলনস্থলে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকার কথা ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে মতিঝিলের এজিবি কলোনির কাঁচাবাজার এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।মতিঝিল থানার ওসি হায়াতুজ্জামান বলেন, “এজিবি কলোনি কাঁচাবাজার এলাকার একটি বট গাছের পাশে বাবুলের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

ওসি জানান, বাবুলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। হলুদ রঙের একটি ট্র্যাক্সিক্যাব থেকে বাদলকে ওই জায়গায় ফেলে যাওয়া হয় বলে কাঁচাবাজার এলাকার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী পুলিশকে জানিয়েছেন।

“বাদল হয়তো শেয়ারে ট্যাক্সিতে উঠে ছিনতাইকারীর কবলে পড়েছিলেন। গাড়িতে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তাকে ওই স্থানে ফেলে পালিয়ে যায় চক্রটি।

All Media Link

২০০৭ সালে ‍পুলিশ বাহিনীতে যোগে দেয়া বাদলের বাবার নাম আজিজ মিয়া। বাড়ি পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায়। ঢাকায় খিলগাঁও দক্ষিণগাঁও এলাকায় থাকতেন তিনি।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »