বার্তাবাংলা ডেস্ক »

amar deshমুসা আহমেদ বখ্তপুরী, কাতার :: আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে একাত্তর টিভির এক প্রশ্নের জবাবে দৈনিক ‘আমার দেশ’ পত্রিকার সাংবাদিক ইলিয়াস খাঁন বলেছেন, শাহাবাগের আন্দোলন শুরুর প্রথম তিনদিন আমরা তাদের পক্ষেই ছিলাম। কিন্তু পরে যখন আন্দোলন থেকে আমার দেশ পত্রিকা বন্ধের ঘোষণা আসে, তখন থেকেই আমরা ‘আমার দেশ’ পত্রিকায় আন্দোলনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ইচ্ছা মত লিখতে শুরু করেছি। কিন্তু সাধারণ মানুষের প্রশ্ন, দৈনিক আমার দেশ বন্ধের কথা বলেছেন বলেই কি আপনারা যা ইচ্ছে তা-ই লিখে যাচ্ছেন? মাঠে একজন লোকে ‘আমার দেশ’ পত্রিকা বন্ধের কথা বললেই কি পত্রিকা বন্ধ হয়ে যায়? আর সাধারণ একজন লোকের কথার উপর ভিত্তি করে দেশের একটি প্রথম শ্রেণীর জাতীয় পত্রিকা তার প্রতিশোধ নেবার অভিপ্রায়ে সত্যকে মিথ্যা, মিথ্যাকে সত্য লিখে পাঠকদের মাঝে এভাবে কি বিভ্রান্তি ছটাতে পারে? হে, আল্লাহ আমাদের সকলকে সত্য কথা বলার তৌফিকদান করুন, আমিন।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ফারজানা চৌধুরী তন্বী। লেখালিখি করি ফারজানা তন্বী নামে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করার পর আজ প্রায় পাঁচ বছর ধরে লেখালিখির সঙ্গেই আছি। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, বাগান করা আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »