বার্তাবাংলা ডেস্ক »

এস এ চৌধুরী,মৌলভীবাজার:: মুক্তিযুদ্ধের জাগ্রত মঞ্চের ছাত্র-গণ অবস্থান কর্মসুচী শুরু হয়েছে।জেলার কমলগঞ্জে গত শনিবার বিকাল ৩ঘ: কমলগঞ্জ পৌরসভার ভানুগাছ চৌমোহনা চত্বরে এই কর্মসুচীর শুরু হয় এবং  রোববার থেকে- ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২এর দেয়া রায় জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার যাবজ্জীবন দন্ডাদেশ বাতিল করে কাদের মোল্লাসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি ও জামায়াত শিবিরের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে উপজেলার চৌমোহনাস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গন থেকে- ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক  ফাঁসির  রায় ঘোষনার আগ পর্যন্ত এই কর্মসুচী চলবে বলে আয়োজকরা জানান।শনিবার  সন্ধ্যায় কাদের মোল্লাসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের  ফাঁসির দাবীতে উত্তাল কমলগঞ্জের চৌমোহনা চত্বরে হাজারো ছাত্র গণজমায়েতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা হয় । সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজ পত্রিকার সম্পাদক শাহীন আহমদ ও কমলগঞ্জ সমকাল সুহৃদ সমাবেশের সভাপতি শাব্বির এলাহীর পরিচালনায় সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন,কমলগঞ্জ থানার ওসি বীর মুক্তিযোদ্ধা নীহার রঞ্জন নাথ, অধ্যক্ষ এম মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক(সরকার দলীয় চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ এম এ শহীদের ছোট ভাই), অধ্যাপক আলহাজ্ব রফিকুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিন্হা, অধ্যাপক হারুনুর রশীদ ভূঁইয়া, কমলগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ মো: আনোয়ার হোসেন, নারীনেত্রী বিলকিস বেগম, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ সম্পাদক মো: সানোয়ার হোসেন, উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অসমঞ্জু প্রসাদ রায় চৌধুরী, গণসংগীত শিল্পী রমাকান্ত গোয়ালা, যুবনেতা ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমদ বাবু, আফরোজ আহমদ, ছাত্রনেতা আনোয়ার পারভেজ আলাল, সায়মন ইসলাম প্রমুখ।বক্তারা বলেন,এদেশে কোনো আলবদর, আলসামস ও রাজাকারের জায়গা হবে না ।কাদের মোল্লাসহ সকল যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসির দাবিতে বাঙ্গালী জাতি আজ ঐক্যবদ্ধ। অবিলম্বে জামায়াত শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধের  দাবী জানান।অনুষ্ঠানে কমলগঞ্জ উপজেলার আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, উপজেলা মহিলা পরিষদ, সমকাল সুহৃদ সমাবেশ, উদীচী, প্রজন্ম ৭১, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, ব্যবসায়ী সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে একাত্মতা প্রকাশ করা হয়েছে ।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ফারজানা চৌধুরী তন্বী। লেখালিখি করি ফারজানা তন্বী নামে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করার পর আজ প্রায় পাঁচ বছর ধরে লেখালিখির সঙ্গেই আছি। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, বাগান করা আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »