বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Popeবার্তাবাংলা ডেস্ক ::অপ্রত্যাশিতভাবেই পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ষোড়শ বেনেডিক্ট।

এক্ষেত্রে বার্ধক্যকে কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন ৮৫ বছর বয়সি এই জার্মান ধর্মযাজক।

সোমবার তিনি জানিয়েছেন, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পদত্যাগ করবেন তিনি।

All Media Link

ষোড়শ বেনেডিক্ট পদত্যাপত্র জমা দিলে তিনি হবেন ৬০০ বছরের ইতিহাসে এক্ষেত্রে প্রথম ব্যক্তি । সর্বশেষ ১৪১৫ সালে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল, তখন পদত্যাগ করেছিলেন পোপ দ্বাদশ গ্রেগরি।

ষোড়শ বেনেডিক্টের ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় রোমে বিবিসির সংবাদদাতা এলেন জনস্টন বলেন, “ঘোষণাটি আসে হঠাৎ, এবিষয় আগে কোনো আভাস পাওয়া যায়নি।”

ভ্যাটিক্যানের এক মুখপাত্র বলেছেন, ২৮ ফেব্রুয়ারি ষোড়শ বেনেডিক্ট পদত্যাগ করার পর নতুন কেউ পোপের দায়িত্ব না নেয়া পর্যন্ত ওই পদটি শূন্য থাকবে।

ভ্যাটিক্যান কর্মকর্তা ফাদার প্যাড্রিকো ল্যাম্বার্দির বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, নতুন পোপ নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ ২৪ মার্চ।

তিনি বলেন, “গত কয়েক মাস ধরে পোপ দায়িত্ব ছাড়ার কথা ভাবছিলেন। এটা তার একান্তই ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। কোনো রকম বাইরের চাপে নয়।”

পোপ দ্বিতীয় জন পলের মৃত্যুর পর ২০০৫ সালে ৭৮ বছর বয়সে পোপ হিসেবে অভিষিক্ত হন জোসেফ রাটজিঙ্গার। পোপ হয়ে ষোড়শ বেনেডিক্ট নাম নেন তিনি।

পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে পোপ বেনেডিক্ট বলেছেন, সম্প্রতি কয়েকমাস ধরে তিনি লক্ষ্য করছেন যে তার শারিরীক শক্তি কমে গেছে এবং তিনি দায়িত্ব পালনে অক্ষমতা বুঝতে পারছেন।

তাছাড়া পোপের দায়িত্বের গুরুত্ব উপলব্ধি করেই রোমান ক্যাথলিক চার্চের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতার পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিনি।

রক্ষণশীল হিসেবে পরিচিতি পাওয়া বেনেডিক্ট বলেন, “পরিবর্তনের এই যুগে ধর্মীয় গুরুর দায়িত্ব পালনে শারীরিক ও মানসিক শক্তি দুইই থাকা গুরুত্বপূর্ণ।

“কিন্তু বয়স বেড়ে যাওয়ায় এ গুরুভার আর আমার পক্ষে যথাযথভাবে পালন করা সম্ভব হয়ে উঠছে না।”

পদত্যাগের ঘোষণার বার্তায় পোপ বলেন, “দায়িত্ব পালনকালে আমাকে সহযোগিতা করার জন্য এবং ভালবাসা দেখানোর জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আসুন আমরা সবাই মিলে আমাদের বিশ্বাস দৃঢ় করি।

“আমাদের লর্ড জিসাস ক্রাইস্ট; পবিত্র মা মেরির কাছে করজোড়ে প্রার্থনা করি, তিনি যেন নতুন পোপ নির্বাচনে ‘কার্ডিনাল ফাদার’দেরকে তার মাতাসুলভ বদান্যতা দিয়ে সাহায্য করেন।”

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »