বার্তাবাংলা ডেস্ক »

05_Protest_Shahbagh_Quader+Molla_Verdict+060213বার্তাবাংলা ডেস্ক ::রাজধানীর শাহবাগের তারুণ্যের বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে জেলায় জেলায়। দিনভর প্রতিবাদী কণ্ঠে ছিল- ‘কাদের মোল্লার ফাঁসি চাই’।

চট্টগ্রাম, সিলেট, চাঁদপুর, কক্সবাজার, রাজশাহী, কুমিল্লা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও জেলা এবং বিভিন্ন ক্যাম্পাসে এসব বিক্ষোভে যোগ দেন নানা শ্রেণি-পেশার হাজারো জনতা।

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল মানবতাবিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করে জামায়াত নেতা কাদের মোল্লাকে যাবজ্জীবন সাজার আদেশ দেয়ার পর মঙ্গলবার বিকালে শাহবাগে শুরু হয় প্রতিবাদী কর্মসূচি।

জামায়াতে ইসলামীর হরতালের মধ্যেই বুধবার তা ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন প্রান্তে। শহীদ মিনার আর শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো পরিণত হয় গণজমায়েতে।

All Media Link

এরই মধ্যে রাজধানীতে এক সমাবেশ থেকে শুক্রবার মহাসমাবেশ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

বিস্তারিত আমাদের প্রতিনিধিদের খবরে-

সিলেট: বুধবার বিকাল ৪টা থেকে সিলেটের চৌহাট্টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অবস্থান নেয় কয়েক হাজার আন্দোলনকারী। গণসঙ্গীত, ফাঁসির দাবিতে স্লোগানের মধ্য দিয়ে চলছে এ কর্মসূচি।কর্মসূচিতে অংশ নেয়া আন্দোলকারীরা জানিয়েছেন, কাদের মোল্লার ফাঁসির আদেশ না দেয়া পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। সমাবেশে ছাত্র-জনতা, সাংস্কৃতিক কর্মী, রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মী এবং শিক্ষকরা সংহতি প্রকাশ করেন।

এর আগে বেলা সাড়ে ৩টায় সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষকরা পদযাত্রা করে শাবি ক্যাম্পাস থেকে সমাবেশে যোগ দেন।

কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করে সেখানে অবস্থান নেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তার সহধর্মিনী শাবি শিক্ষক অধ্যাপক ইয়াসমিন হক, শাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক শাসমুল আলম।

এ সময় জাফর ইকবাল বলেন, একাত্তর সালে তারা কি করেছিল তা আমরা দেখেছি, কি করেছে তা জানি। একমাত্র ফাঁসিতে ঝোলানোই হচ্ছে ন্যায় বিচার। এটি প্রতিষ্ঠিত না হলে এদেশের অসংখ্য মুক্তিযোদ্ধা-শহীদদের আত্মা শান্তি পাবে না।

এর আগে দুপুরে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লার কুশপুতুল পোড়ানো হয়। এছাড়া সকাল থেকেই প্রতীকী অনশন, সমাবেশ ও বিক্ষোভ করেছে ছাত্রশিক্ষকরা।

চট্টগ্রাম: বুধবার বিকাল থেকে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদী কর্মসূচি পালন করছে ‘সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী তরুণ উদ্যোগ’।আর জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল কাদের মোল্লার দাবিতে এই কর্মসূচিতে শামিল হয়েছেন বিভিন্ন শ্রেণি পেশার হাজারো মানুষ।

উদীচী, বোধন, প্রমা, সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন, চারণ, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম, অনলালইন ব্লগার ফোরাম, আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ছাত্র ইউনিয়ন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, ছাত্র মৈত্রী, ছাত্র ফেডারেশন, যুব ইউনিয়ন, যুব মৈত্রীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী  সংগঠন ছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ সমাবেশে অংশ নেন।

সমাবেশে বক্তৃতার পাশাপাশি প্রতিবাদী গান, কবিতা আবৃত্তি ও কাদের মোল্লার ফাঁসির দাবিতে শ্লোগান দিতে থাকেন অংশগ্রহণকারীরা।

এছাড়া চট্টগ্রাম চারুকলার শিক্ষার্থীরা সড়কে ব্যঙ্গ চিত্র অংকন করেন।

অন্যদের মধ্যে পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি ডা. এ কিউ এম সিরাজুল ইসলাম, উদীচীর কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ডা. চন্দন দাশ, সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী তরুণ উদ্যোগ, চট্টগ্রামের আহবায়ক শরীফ চৌহান সমাবেশে বক্তব্য দেন।

চাঁদপুর: জেলায় ফাঁসির দাবিতে মুক্তিযোদ্ধারা অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থান ধর্মঘট শুরু করেছেন জেলার মুক্তিযোদ্ধারা।

দুপুরে শহরের কালীবাড়ি এলাকায় এই অবস্থান ধর্মঘটে বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার এম এ ওয়াদুদ, মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার হাফেজ খান, সিরাজুল ইসলাম বরকন্দাজ, আবু তাহের পাটওয়ারী, আবুল কালাম চিশতি প্রমুখ।

অবস্থান ধর্মঘটে বক্তারা বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত না কাদের মোল্লা তথা কসাই মোল্লার ফাঁসির রায় ঘোষণা করা না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আমাদের এই আন্দোলন চলবে।

রাজশাহী: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোও ফাঁসির দাবিতে সোচ্চার ছিলেন বুধবার।

শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মোয়াজ্জেম হোসেন খান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, কাদের মোল্লার যাবজ্জীবন রায়ে পুরো দেশেবাসীর সাথে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমাজও হতাশা ও  বিস্ময় প্রকাশ করছে।

“আমরা মনে করি এই রায়ে দেশবাসীর প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটেনি। অপরাধী আবদুল কাদের মোল্লার অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়া সত্ত্বেও তাকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেয়া হয়নি। আমরা তার সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।”

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »